আদর্শ নিউজ। আব্দুল আজিজ ইবনে শফিক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৫টি ইসলামি ও সমমনা রাজনৈতিক দল নিয়ে গঠিত হয়েছে নতুন জোট ‘ইসলামিক ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (আইডিএ)’। জোটের বেশিরভাগ দল নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত নয়। এ জোটের নেতৃত্বে রয়েছেন বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী ও তরিকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব এম এ আউয়াল।

শনিবার ১৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে রাজধানীর হোটেল ইম্পেরিয়ালে সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে এ জোট আত্মপ্রকাশ করে।

নতুন জোটের ১৫টি দলের হচ্ছে, মিছবাহুর রহমান চৌধুরীর বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোট, এম এ আউয়ালের বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, নুরুল ইসলাম খানের গণতান্ত্রিক ইসলামিক মুভমেন্ট, এম এ রশিদ প্রধানের বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি, হাসরত খান ভাষানীর বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ন্যাপ (ভাষানী গ্রুপ), রুমা আলীর বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট, মাওলানা শাহ মোস্তাকিম বিল্লাহ ছিদ্দিকীর বাংলাদেশ জমিয়তে দারুসসুন্নাহ,মাওলানা হারিছুল হকের বাংলাদেশ ইসলামী ডেমোক্রেটিক ফোরাম, হাকিম গোলাম মোস্তফার বাংলাদেশ গণ কাফেলা, মুফতি ফখরুল ইসলামের বাংলাদেশ জনসেবা আন্দোলন, কাজী মাসুদ আহমদের বাংলাদেশ পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টি, রেজাউল করিম চৌধুরীর বাংলাদেশ ইসলামী পেশাজীবী পরিষদ, মুফতি সৈয়দ মাহাদী হাসান বুলবুলের ইসলামী ইউনিয়ন বাংলাদেশ, খাজা মহিবুল্লাহ শান্তিপুরীর বাংলাদেশ মানবাধিকার আন্দোলন ও আব্দুল্লাহ জিয়ার ন্যাশনাল লেবার পার্টি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন জোটের কো-চেয়ারম্যান লায়ন এমএ আউয়াল এমপি বলেন,  ২০০৮ সাল থেকে এখন পর্যন্ত আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকারকে অব্যাহতভাবে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছি। কেননা আমরা চাই বাংলাদেশ এগিয়ে যাক। এই জোট আশা প্রকাশ করছে ইসলামী ও সমমনা দলগুলো ঐক্যবদ্ধ হলে এই শক্তিই এদেশের তৃতীয় রাজনৈতিক শক্তি হিসেবে আবির্ভুত হবে।

ইসলামিক এ নতুন অ্যালায়েন্স প্রসঙ্গে এম এ আউয়াল বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে জোটটি আত্মপ্রকাশ করছে। নির্ববাচনকে সামনে রেখে জোট হলেও সামনের দিকে আলাপ আলেচনার মাধ্যমে সামনের দিনের কর্মকাণ্ড নির্ধারিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে (আইডিএ)-এর মুখপাত্র এম এ আউয়াল আলো বলেন, ‘এই জোট প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য সুদূরপ্রসারী। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে ঢাকায় গণসমাবেশ করে জোটের কর্মসূচি দেশবাসীকে জানাবো। এর আগেই দেশপ্রেমিক দল ও বিখ্যাত আলেম এবং ইসলামি চিন্তাবিদরা এই জোটে যোগদান করবেন।’

জোটে অন্তর্ভুক্ত অনিবন্ধন দল প্রসঙ্গে মিছবাহুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘জোটের অন্তর্ভুক্ত দলগুলো এরই মধ্যে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে। নির্বাচনের আগে আশা করি নিবন্ধন পাবো।’

 

মতামত দিন