আদর্শ নিউজ ডেস্ক। আব্দুল আজিজ ইবনে শফিক


 

এ বছরের দেশসেরা হাসপাতাল হিসেবে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) স্বাস্থ্য খাতে গত দশ বছরে সরকারের সাফল্য উদযাপন এবং ভবিষ্যতে উন্নয়নের রোডম্যাপের কর্মপরিকল্পনা বিষয়ক জাতীয় সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্বাস্থ্য অধিদফতর এ সম্মেলনের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাস্থ্য খাতসহ দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের চিত্র আজ দৃশ্যমান। অনেক আগেই উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে বাংলাদেশ। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় আসার সুযোগ দিতে হবে।’

স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘স্বাস্থ্য খাত দেখেছে সফলতার মুখ। কর্মসূচি গ্রহণ, জনবল নিয়োগ ও অবকাঠামো নির্মাণকাজ অব্যাহত রয়েছে। মাতৃ ও শিশুমৃত্যু হ্রাস, ওষুধের সরবরাহ বৃদ্ধি, স্বাস্থ্য খাতে ডিজিটাল বাংলাদেশ কার্যক্রম ইত্যাদি উন্নয়নমূলক উদ্যোগ গ্রহণ ও বাস্তবায়নে সফলতা পেয়েছে সরকার।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধানদের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন।

সেরা হাসপাতালের দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। তৃতীয় হয়েছে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।
২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের মধ্যে প্রথম হয়েছে— পাবনা জেলা, দ্বিতীয় টাঙ্গাইল এবং তৃতীয় ফেনী জেলা।
আট বিভাগের ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের মধ্যে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেয়েছে নেত্রকোনা, ঝিনাইদহ, হবিগঞ্জ, জয়পুরহাট, খাগড়াছড়ি, ঠাকুরগাঁও, রাজবাড়ী ও ভোলা জেলা।
শ্রেষ্ঠ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পুরস্কার পেয়েছে, বোয়ালমারী, পূর্বধলা, দশমিনা, কেশবপুর, মতলব, পীরগঞ্জ, দিরাই, গোমস্তাপুর, ফটিকছড়ি, বিয়ানীবাজার, জলঢাকা, ঈশ্বরদী, মঠবাড়িয়া, ভৈরব, ভালুকা, ঝিকরগাছা, গোবিন্দগঞ্জ, শ্যামনগর, চৌগাছা, শ্রীমঙ্গল এবং শিবগঞ্জ উপজেলা।
এছাড়া, সেরা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ কেন্দ্র হিসেবে পুরস্কার পেয়েছে, তেতুলিয়া, খুঁটামারা, কুতুবপুর, গৌরীচন্নাই, মির্জানগর, দুর্গাপুর, কাকাইলছড় ও বোরর।
সেরা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র হিসেবে পুরস্কার পেয়েছে, পাবনা, গাইবান্ধা, বাগেরহাট, ভোলা, নরসিংদী, ফেনী, হবিগঞ্জ, ময়মনসিংহ জেলার কেন্দ্র।
সেরা কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি)-এর পুরস্কার পেয়েছে, আমতলীপাড়া, গহেরপাড়া, বকশীপাড়া, বাগবাড়ী, কুতুপালং, চনপাড়া, দক্ষিণ আলীপুর এবং কাইমা পাড়া।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। বিশেষ অতিথি স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য সচিব (স্বাস্থ্য ও শিক্ষা) জি এম সালেহউদ্দিন, অতিরিক্ত সচিব (পাবলিক হেলথ ও ওয়ার্ল্ড হেলথ) মো. হাবিবুর রহমান খান, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. এম ইকবাল আর্সলানসহ ইউনিসেফ, ইউএনএফপিএ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) প্রতিনিধিরা এতে বক্তব্য রাখেন।

মতামত দিন