ক্লাস-পরীক্ষার দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষকদেরকে তালাবদ্ধ করে রাখেন শিক্ষার্থীরা। গতকাল রোববার বেলা ১১টা থেকে শিক্ষার্থীরা বিভাগের সামনে অবস্থান নিয়ে প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দেয়। এতে বিভাগের ভিতরে আটকা পড়েন শিক্ষকরা।

এ বিষয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘ঈদের ছুটির পর বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগে নিয়মিত ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কিন্তু, গত ১৪ দিন হলো আমাদের ক্লাস-পরীক্ষা নিচ্ছেননা শিক্ষকরা। এমন অবস্থায় আমরা দীর্ঘ সেশন জটের আশঙ্কা করছি। তাই আমরা বাধ্য হয়েছি আন্দোলন করতে।’

তারা আরো বলেন, ‘শিক্ষকরা লিখিতভাবে ক্লাস-পরীক্ষা নেওয়ার ঘোষণা দিলেই আমরা আন্দোলন স্থগিত করবো।’

এদিকে বিভাগটির শিক্ষকরা সভাপতির সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে কোন ধরনের ঘোষণা ছাড়াই ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেননা। যার কারণে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে বিভাগটি। ঝুলে রয়েছে বিভাগের ৪২তম ব্যাচের স্নাতকোত্তরের চূড়ান্ত পরীক্ষা।

শিক্ষকদের অভিযোগ, বিভাগীয় সভাপতি একাডেমিক কমিটির সভা ডাকছেন না। আর সভার দাবিতে তারা সভাপতিতে লিখিত আবেদনও জানিয়েছেন। তবে বিভাগীয় সভাপতি বলছেন, ‘আমি নতুন সভাপতি হয়েছি। তাই সব কিছু বুঝে একাডেমিক সভা ডাকবো।’
বিভাগের শিক্ষক ও সভাপতির এমন দুমুখি অবস্থানের কারণে বিভাগে বিচ্ছিন্নভাবে দু’একটি ক্লাস ছাড়া কোনো ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়নি।’
এ বিষয়ে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মো. মনজুরুল হাসান বলেন, সোমবার বেলা ১১টায় বিভাগে জরুরি একাডেমিক সভা আহবান করেছি। আমি সকালে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। তবে শিক্ষকরা ক্লাস-পরীক্ষা নিতে চাচ্ছেন না। যদি কোনো শিক্ষক ক্লাস-পরীক্ষা না নেয়, তাহলে আমার কিছু করার থাকেনা।’

উল্লেখ্য, ২২ জুলাই হাইকোর্টের এক নির্দেশে ২৬ জুলাই বিভাগের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন অধ্যাপক মো. মনজুরুল হাসান। বিভাগের সভাপতি হওয়ার পর তিনি একাডেমিক সভা ডাকেন নি। এই অজুহাতে বিভাগের শিক্ষকরা বিভাগের সব ধরনের ক্লাস-পরীক্ষা নেওয়া থেকে বিরত আছেন।

মতামত দিন