আদর্শ নিউজ ডেস্ক


গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানীপুরে ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদ ও বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করছে এন এ জেট গ্রুপের সি এ নীট কম্পোজিটের কারখানার শ্রমিকরা।  এ সময় শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক টায়ার ও কাঠ বাঁশের আগুন দিয়ে অবরোধ করে রাখে।

এ সময় সড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে গাজীপুর শিল্প পুলিশ, জয়দেবপুর থানা পুলিশ ও মাওনা হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করে।

শ্রমিকদের দাবি, বিভিন্ন অজুহাতে কারখানার শ্রমিকদের অন্যায়ভাবে ছাঁটাই করা হয়েছে।  ছাঁটাই করা এসব শ্রমিকদের বেতন প্রদান করা হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে এ অবস্থা চলতে থাকলেও কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের কোনো দাবি না মানায় তারা বিক্ষোভ করছে।

কারখানার কাটিং অপারেটর জান্নাত বলেন, গত চার থেকে পাঁচ দিন আগে তাকে উৎপাদন ফ্লোর থেকে ডেকে নিয়ে সাদা কাগজে স্বাক্ষর দিতে বলে। স্বাক্ষর না দিলে তাকে জোর করে কারখানা থেকে বের করে দেওয়া হয়।

ফিনিশিং বিভাগের অপারেটর হাসিনা বেগম ও আবু বকর, সুইং অপারেটর জাহানারা বেগম ও তারেক মিয়া বলেন, ‘আজ (বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর) সকালে কাজে যোগ দিতে আসলে নিরাপত্তা কর্মীরা প্রায় চারশ শ্রমিককে কারখানায় ঢুকতে দেয়নি। পরে শ্রমিকেরা লাঠিসোঁটা নিয়ে পাশের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করে।’

গাজীপুর শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাহেব আলী পাঠান বলেন, ‘শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে শ্রমিকেরা মহাসড়কে অবস্থান নেয়। পরে তাদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিয়ে সড়ক থেকে সরে যেতে বলা হয়। তবে কারখানার মালিক না আসলে তারা সড়ক থেকে যাবেন না বলে জানান। কারখানার পক্ষ থেকে প্রশাসন বিভাগের প্রতিনিধি এসে তাদের বোঝানোর চেষ্টা করেন।’

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেলা সাড়ে ১১টা দিকে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে হটিয়ে দেয়। পরে ওই মহাসড়কে যান চলাচল শুরু হয় বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

মতামত দিন